বিচ্ছিন্ন হলো খুলনা নগরী

টাইগার নিউজ

করোনা মোকাবিলায় খুলনা মহানগরীকে অন্যান্য অঞ্চল থেকে বিচ্ছিন্ন করার উদ্যোগ নিয়েছে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ। গতকাল সকাল থেকে নগরীতে প্রবেশ ও বের হওয়ার ক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা হচ্ছে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত যৌক্তিক কারণ ছাড়া কোনো ব্যক্তি বা ব্যক্তিগত পরিবহনে কেউ শহরে প্রবেশ বা বের হতে পারবে না। একই সঙ্গে পাড়া-মহল্লায় জনসমাগম কমাতে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানিয়েছে পুলিশ। কেএমপি কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবির বলেন, নগরীর বিভিন্ন প্রবেশমুখে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। ঈদে ঢাকা, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জসহ ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা থেকে মানুষ খুলনায় আসতে শুরু করেছে।

 এ বিষয়টি মাথায় রেখে বহিরাগতদের প্রবেশের ক্ষেত্রে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।জানা যায়, বিশ্বজুড়ে করোনা ছড়িয়ে পড়ার পর এ পর্যন্ত খুলনায় ৩৮টি দেশ থেকে ১ হাজার ৮১৯ জন প্রবাসী এসেছেন। এ ছাড়া ঢাকা, গাজীপুর, নরসিংদী, নারায়গণগঞ্জ থেকে এসেছেন ৩ শতাধিক মানুষ। এদের চিহ্নিত করে কোয়ারেন্টাইনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তার পরও সড়ক-নৌপথের ২১টি এন্ট্রি পয়েন্ট থেকে প্রতিনিয়ত বহিরাগতরা নগরীতে আসছেন। এদের নিয়ন্ত্রণের জন্যই খুলনা নগরীকে বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।জানা যায়, গতকাল পর্যন্ত খুলনায় ২১ জন করোনা রোগী চিহ্নিত হয়েছেন; যার মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছেন দুজন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও সাতজন। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, জরুরি সেবা ও রপ্তানি পণ্য সরবরাহ কাজে নিয়োজিত ব্যক্তি ও যানবাহন এ নিয়ন্ত্রণের আওতামুক্ত থাকবে। এ ছাড়া যথাযথ কারণ ছাড়া নগরীতে প্রবেশ ও বের হওয়ার চেষ্টা করলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার মতামত



close